লেবার পার্টির ভরাডুবির মাঝেই টিউলিপের হ্যাটট্রিক জয়

9
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্ক:
ইতিহাসের অন্যতম লজ্জাজনক পরাজয়ের ভারে জেরেমি করবিনের লেবার পার্টির লাল দেয়াল ধসে পড়লেও অক্ষত রইলো বাঙালি কন্যা টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিকের হ্যাম্পস্টেড এন্ড কিলবার্ন দুর্গ।

যুক্তরাজ্যের সাধারণ নির্বাচনে টানা হ্যাট্রিক জয়লাভের মধ্যদিয়ে এক অনন্য অর্জনের অধিকারিনী হলেন টিউলিপ। বিগত দুই নির্বাচনে টানা জয়লাভে ব্রিটিশ রাজনীতিতে নিজের জাত চিনিয়ে দিয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত ব্রিটিশ নাগরিক টিউলিপ। ব্রিটেনের লেবার পার্টি এমপি এই বাঙালি ললনা বাংলাদেশের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছোট বোন শেখ রেহানার মেয়ে।

শুক্রবার (১৩ ডিসেম্বর) লন্ডনের প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ আসন হ্যাম্পস্টেড অ্যান্ড কিলবার্নে লেবার দলের প্রার্থী টিউলিপ পেয়েছেন ২৮ হাজার ৮০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কনজারভেটিভ দলের জনি লাক ভোট পেয়েছেন ১৩ হাজার ৮৯২।

২০১৫ সালে ১ হাজার ১৩৮ ভোটের ব্যবধানে প্রথমবার এমপি নির্বাচিত হন টিউলিপ। এরপর ২০১৭ সালে ভোটে টিউলিপের জয়ের ব্যবধান বেড়ে দাঁড়ায় ১৫ হাজার ৫৬০। এবার ১৪ হাজার ১৮৮ ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হলেন তিনি। এবারের নির্বাচনে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত টিউলিপ সিদ্দিক ২৮০৮০ ভোট পেয়েছেন। অন্যদিকে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কনজারভেটিভ পার্টির জনি লাক পেয়েছেন ১৩৮৯২ ভোট।

যুক্তরাজ্যে প্রতি ৫ বছর পর সাধারণ নির্বাচন হওয়ার কথা। কিন্তু ব্রেক্সিট নিয়ে জটিলতার কারণে গত পাঁচ বছরেরও কম সময়ে দেশটিতে তিনটি নির্বাচন হলো। ফলে টিউলিপকে তিনটি নির্বাচনেই লড়তে হলো।

একদিকে পারিবারিক পরিচয়, অন্যদিকে লন্ডনের তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ আসনে প্রার্থী হওয়ায় এবারের নির্বাচনেও টিউলিপ আলোচনায় ছিলেন। বৃহস্পতিবার যুক্তরাজ্যে সাধারণ নির্বাচন হয়। স্থানীয় সময় রাত ১০টায় ভোট গ্রহণ শেষ হয়। তিনি হ্যাম্পস্টেড এন্ড কিলবার্ন এলাকা থেকে লেবার পার্টির টিকিটে টানা তিনবার এমপি হয়ে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করলেন।