পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ভারত সফর বাতিল

6
Print Friendly, PDF & Email

সিনিয়র করসপন্ডেন্ট, ঢাকা:
শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস ও বিজয় দিবসের আগে ‘ব্যস্ত সময়সূচি’ থাকায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেনের নির্ধারিত নয়াদিল্লি সফর বাতিল করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তার বরাতে এ খবর দিয়েছে সংবাদ সংস্থা ইউএনবি।

পূর্বনির্ধারিত সফর বাতিলের বিষয়টি নিশ্চিত করে ওই কর্মকর্তা বলেন, দেশে গুরুত্বপূর্ণ কিছু কর্মসূচিতে অংশ নেয়ার প্রয়োজন রয়েছে বলেই তিনি (মোমেন) যাচ্ছেন না।
তিনি জানান, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এম শাহরিয়ার আলম শুক্রবার মাদ্রিদের উদ্দেশে রওনা হবেন এবং পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হক বর্তমানে দ্য হেগে বাংলাদেশের একটি প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন।
ড. মোমেন আগামী জানুয়ারিতে ভারত সফরে যেতে পারেন বলে অন্য এক কর্মকর্তা সংবাদ সংস্থাটিকে জানিয়েছেন।

ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকেও ড. মোমেনের সফর বাতিলের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তারা জানিয়েছে, অভ্যন্তরীণ ব্যস্ত সূচির কারণে ডিসেম্বরের ১২ থেকে ১৪ তারিখে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আসতে পারছেন না বলে আমাদের জানিয়েছেন।

এদিকে, ভারতীয় গণমাধ্যমগুলোতে ড. মোমেনের এই সফর বাতিলের পেছনে ভারতের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় ‘বিতর্কিত’ নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাসকে কেন্দ্র করে এক ধরনের অস্বস্তি সৃষ্টি হওয়াকে কারণ হিসেবে বলা হয়েছে। কূটনৈতিক সূত্রের বরাত দিয়ে টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়, ভারতের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় ‘বিতর্কিত’ নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাস হওয়ায় বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার পূর্বনির্ধারিত তিনদিনের ভারত সফর বাতিল করেছেন।

তবে ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, নাগরিকত্ব বিল পাস হওয়ার পর সৃষ্ট পরিস্থিতির সঙ্গে এই সফর বাতিলের কোনো সম্পর্ক নেই।

‘ইন্ডিয়ান ওশান ডায়ালগ- আইওডি’ এর ষষ্ঠ সংস্করণে যোগ দিতে বৃহস্পতিবার বিকেলে নয়াদিল্লির উদ্দেশে রওনা হওয়ার কথা ছিলো পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেনের। অনুষ্ঠানের ফাঁকে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্করের সাথে দ্বিপক্ষীয় বিষয়ে আলোচনার কথা ছিল তার।
শুক্রবার ‘ইন্ডিয়ান ওশান ডায়ালগ- আইওডি’ এর ষষ্ঠ সংস্করণ অনুষ্ঠিত হবে যেখানে বাংলাদেশের একটি প্রতিনিধি দল অংশ নেবে।