চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের নেতৃত্বে ইমরুল কায়েস

14
Print Friendly, PDF & Email

স্পোর্টস করসপন্ডেন্টঃ
আগামীকাল বুধবার থেকে মাঠে গড়াবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) বিশেষ আসর ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’। প্রথম দুই ম্যাচে খেলবেন না চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের আইকন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এজন্য তার পরিবর্তে প্রথম দুই ম্যাচে দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করবেন ইমরুল কায়েস। পুরোদমে মাঠে নেমে নিজেদের ভালোটাই উপহার দেওয়ার প্রত্যাশা চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের। প্রথম ম্যাচে জয় দিয়ে শুরু করতে চান ইমরুল কায়েস।

আগামীকাল (১১ ডিসেম্বর) দুপুর ১ঃ৩০ এ উদ্বোধনী ম্যাচে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের মুখোমুখি হবে সিলেট থান্ডার। পুরোদমে মাঠে নেমে নিজেদের ভালোটাই উপহার দেওয়ার প্রত্যাশা চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের। প্রথম ম্যাচে জয় দিয়ে শুরু করতে চায় চট্টগ্রাম। ইমরুল কায়েস আজ মিরপুরে সংবাদমাধ্যমকে বললেন,

‘শুরুটা আসলে ভালোই করতে চায় সবাই। যদি প্রথম ম্যাচে জিততে পারি সবার আত্মবিশ্বাস বাড়বে। সিজনটাও ভালো শুরু হবে সবার। আমাদের লোকাল প্লেয়ার এবং আমাদের টিমেও জন্যও ভালো হবে। সবাই আত্মবিশ্বাসী আছে, সবাই আন্তরিক ভাবে চাইবে প্রথম ম্যাচটি জিততে।’

ইনজুরির কারণে প্রথম দুই ম্যাচ খেলবেন না চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এজন্য তার পরিবর্তে প্রথম দুই ম্যাচে দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করবেন ইমরুল কায়েস। রিয়াদের না থাকা বিষয়ে ইমরুল কায়েসের বক্তব্য,

‘রিয়াদ ভাইয়ের না থাকায় ডিফিক্যাল্ট কম্বিনেশনটা এডজাস্ট করা। উনাকে দুটো ম্যাচ মিস করবো। ফরেন প্লেয়ারও খেলতে পারে আবার লোকাল প্লেয়ারও খেলতে পারে ওই জায়গাটায়। এই জায়গাটা রিকভারি করাটা ডিফিক্যাল্ট। যারাই এই জায়গায় সুযোগ পাবে তাঁরা এটা ইউটিলাইজড করার চেষ্টা করবে।’

টিম মিটিংয়ে দলের খেলোয়াড়দের কোন জায়গায় শক্তি, আর কোথায় ঘাটতি রয়েছে এব্যাপারের সবার ধারণা পরিষ্কার হয়েছে। চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স দলে সবাই সবার সেরাটা দিতে পারলেই ভালো কিছু করা সম্ভব বলে মানছেন ইমরুল কায়েস,

টিম মিটিংয়ে প্রত্যেকটা প্লেয়ারের স্ট্রং পয়েন্ট, উইক পয়েন্ট নিয়ে আলোচনা হয়। আমাদেরটাও হয়েছে। সবাই সবার কাজটা ঠিক ভাবে করলে ভালো কিছু হওয়া সম্ভব।’

গত বিপিএলে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের শিরোপা জয়ী অধিনায়ক ইমরুল কায়েস এবার খেলছেন চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের হয়ে। নতুন দলের সঙ্গে ইমরুল কায়েসের সময়টা কেমন যাচ্ছে?

আমি যখন একটা টিমে চার পাঁচ বছর খেলেছি কুমিল্লায়, সেখান থেকে আরেকটা টিমে যখন আসবো নতুন একটা এনভাইরনমেন্ট থাকবে। আমরা লোকাল প্লেয়াররা একসঙ্গেই খেলি এদিক দিয়ে কোনো চেঞ্জ নাই। দুই-একটা ম্যাচ খেললে আমরা আরও প্রোপার ভাবে মানিয়ে নিতে পারবো। ইউনিটিটা আরও স্ট্রং হবে।’

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স স্কোয়াডঃ

দেশি ক্রিকেটারঃ মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, ইমরুল কায়েস, নাসির হোসেন, রুবেল হোসেন, কাজী নুরুল হাসান সোহান, এনামুল হক জুনিয়র, মুক্তার আলি, পিনাক ঘোষ, নাসুম আহমেদ ও জুনায়েদ সিদ্দীকি।

বিদেশি ক্রিকেটার: ক্রিস গেইল, কেসরিক উইলিয়ামস, আভিস্কা ফার্নান্দো, রিয়াদ এমরিত, রায়ার্ন বার্ল ও ইমাদ ওয়াসিম।