‘মুহাম্মদ’ যুক্তরাষ্ট্র যুক্তরাজ্য জার্মানির সবচেয়ে জনপ্রিয় নাম

8

মাসুম বিল্লাহ, নিউজ ডেস্ক:
বিশ্বের সর্বত্রই মুসলমানরা ইসলামের শেষ নবী হযরত মোহাম্মদ (সা.)-এর নামের সঙ্গে মিলিয়ে সন্তানদের নাম রাখতে পছন্দ করেন। সেই ধারা অনুসরণে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমা দেশগুলোতেও ছড়িয়ে পড়েছে। এবার যুক্তরাষ্ট্রে ছেলেশিশুর সবচেয়ে জনপ্রিয় দশটি নামের তালিকায় ঢুকে পড়েছে ‘মুহাম্মাদ’। বেবিসেন্টার নামের এক মার্কিন ফার্ম এই তথ্য জানিয়েছে। খবর কাতারের শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যম আল জাজিরার।

বেবিসেন্টার গত বুধবার তালিকাটি প্রকাশ করে। ফার্মটি জানায়, সোশ্যাল সিকিউরিটি ডাটা অনুসারে ২০০০ সালে ৬২০তম অবস্থানে থাকা মুহাম্মাদ নামটি ২০১৮ সালে ৩৪৫তম অবস্থানে চলে আসে।

ফার্মটির মতে, এই সরকারি সংস্থা ভিন্ন বানানে লেখা মুহাম্মাদ গণনা করলে এটির তালিকায়ও শীর্ষে থাকবে মুহাম্মাদ। গত বছরের তুলনায় এ বছর ২৯ শতাংশ বেশি জনপ্রিয় হয়েছে মুহাম্মাদ নামটি।

মুহাম্মাদ নামটি ২০১৩ সালে প্রথমবারের মতো যুক্তরাষ্ট্রে ছেলেশিশুর সবচেয়ে জনপ্রিয় নামের তালিকায় শীর্ষ ১০০-তে ঢুকে পড়ে। নামটি এরপর থেকে নির্বিঘ্নে শুধু সামনের দিকে এগিয়ে গেছে।

বেবিসেন্টারের ২০১৯ সালের এই তালিকায় থাকা ছেলেশিশুর সবচেয়ে জনপ্রিয় নামগুলো হলো যথাক্রমে- লিয়াম, জ্যাকসন, নোয়াহ, এইডেন, গ্রেসন, ক্যাডেন, লুকাস, এলিজাহ, অলিভার ও মুহাম্মাদ।

মেয়েশিশুর সবচেয়ে জনপ্রিয় নামগুলো হলো যথাক্রমে- সোফিয়া, অলিভিয়া, এমা, এভা, আরিয়া, ইসাবেলা, অ্যামেলিয়া, মিয়া, রিলে ও আলিয়াহ। তালিকাটি থেকে লায়লাকে সরিয়েছে আলিয়াহ।

একইভাবে বর্তমানে যুক্তরাজ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় নাম মুহাম্মদ। ২০১৩ সাল থেকে শুরু করে পরের টানা চার বছর ধরে সরকারি তালিকায় সবচেয়ে বেশি রাখা নামের শীর্ষে রয়েছে মুহাম্মদ। কিন্তু ২০১৭ সালে এটি পিছে পড়ে যায়।

যুক্তরাজ্যের জাতীয় পরিসংখ্যান অফিসের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, মুহাম্মদ নামের বানানের বিষয়টি বিবেচনা করলে এই পরিসংখ্যান সহজেই বদলে মুহাম্মদ নামের তালিকার শীর্ষে থাকতো।

আর জার্মানির বার্লিনে ২০১৮ সালে ছেলে নবজাতকের নামের প্রথম অংশ হিসেবে সবচেয়ে বেশি যেটি বেছে নেওয়া হয়েছে তা হচ্ছে ‘মোহাম্মদ’। এছাড়াও দেশটির ১৬টি রাজ্যের ছয়টিতেই শীর্ষ দশ পছন্দের তালিকায় ছিল নামটি। নবজাতকের নাম নিয়ে ‘অ্যাসোসিয়েশন ফর ফার্মান ল্যাঙ্গুয়েজ’র জরিপে এমন তথ্য উঠে এসেছে। ইসলামের শেষ নবী হযরত মোহাম্মদ (সা.)-এর নামের সঙ্গে মিলিয়ে সন্তানদের নাম রাখেন মুসলমানরা। বার্লিনে মুসলমানদের সংখ্যা ১০ শতাংশের বেশি না হলেও সেখানে এই নামটি জনপ্রিয়তার শীর্ষে চলে গেছে। আর গোটা জার্মানির হিসেবে শিশুদের নামের মধ্যে ২৪তম স্থানে রয়েছে এটি। সংবাদ মাধ্যম ডেইলি মেইল এই তথ্য জানিয়েছে।