আদালতে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির পাঁয়তারা হচ্ছে: অ্যাটর্নি জেনারেল

15
Print Friendly, PDF & Email

সিনিয়র করসপন্ডেন্ট, ঢাকাঃ
খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা আদালতে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির পাঁয়তারা করছেন বলে অভিযোগ করেছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন তিনি।

এর আগে সকালে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে খালেদার স্বাস্থ্যগত তথ্যের বিষয়ে সময় চান রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। এ সময় প্রধান বিচারপতি এ প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ১২ ডিসেম্বর দিন ধার্য করেন।

তখন আদালতে খালেদার আইনজীবী জয়নুল আবেদীন বলেন, আমাদের কাছে প্রতিবেদন আছে। অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, কীসের প্রতিবেদন, ওটা ড্যাবের প্রতিবেদন। জয়নুল আবেদীন বলেন, বিএসএমএমইউর।

জয়নুল আবেদীন আরও বলেন, গতকাল প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘খালেদা জিয়া রাজার হালে আছেন।’ এক পর্যায়ে বিএনপির আইনজীবীরা আদালতে হৈচৈ শুরু করেন। তবে মওদুদ আহমদসহ কয়েকজন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী তাদের থামানোর চেষ্টা করেন। এ অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে বিচারকরা এজলাস ছেড়ে যান।

এ ঘটনার পর তাৎক্ষণিক সংবাদ সম্মেলন করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। তিনি অভিযোগ করে বলেন, হৈচৈয়ের ফলে আদালত অবমাননা হয়েছে। তারা আপিল বিভাগের ভেতরে, আদালতের এজলাজ কক্ষে নজিরবিহীন হট্টগোল করেছেন। তাদের হট্টগোলের বিষয়ে আমি আশা করি প্রধান বিচারপতি ব্যবস্থা নেবেন। আর ভবিষ্যতে যদি এ রকম করেন তাহলে আদালতে মামলা পরিচালনা করা অসম্ভব হয়ে যাবে।

গত ২৮ নভেম্বর জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাত বছরের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের শুনানি শুরু হয়। ওইদিন তার জন্য মেডিকেল বোর্ড গঠন করে ৫ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন আপিল বিভাগ। গত ১ এপ্রিল থেকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন।