পাকিস্তানের ৬২৯ নারীকে চীনে পাচার

4
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্কঃ
পাকিস্তানের কমপক্ষে ৬২৯ জন মেয়ে ও নারীকে কনে হিসেবে চীনের বিভিন্ন নাগরিকের কাছে বিক্রি করে দেওয়া হয়েছিল। পাকিস্তানি গোয়েন্দাদের তরফ থেকে এ ব্যাপারে নিশ্চিত করা হয়েছে যে, ৬২৯ জন নারী চীনে পাচার হয়েছে।

গত ১৮ মাস ধরে এসব নারীদের পাচারের কাজ চলেছে বলে জানানো হয়েছে। এ বিষয়ে প্রশাসন কঠোর ব্যবস্থা নেবে বলে জানানো হলেও আশানুরুপ কোনো ব্যবস্থাই নেয়া হয়নি।

গোয়েন্দাদের একটি নথিতে ওই পাক নারীদের জাতীয় পরিচয়পত্র এবং তাদের চীনা স্বামীদের নাম ও বিয়ের তারিখ উল্লেখ করা হয়েছে। ২০১৮ থেকে ২০১৯ সালের এপ্রিলের মধ্যে ওই নারীদের কনে হিসেবে চীনে পাচার করা হয়েছে।

২০১৯ সালের জুনে পাচার হওয়া নারীদের একটি তালিকা তৈরি করা হয়। এক পাক কর্মকর্তা বলেন, এই মেয়েদের জন্য কেউ কিছু করছে না। পুরো পাচারচক্র আরও বিস্তৃত হয়েছে। কারণ তারা জানে যে, বিপদে পড়লেও তারা বেঁচে যেতে পারবে। এর আগে গত অক্টোবরে ফয়সালাবাদের একটি আদালত মানব পাচারের ঘটনায় ৩১ চীনা নাগরিককে অভিযুক্ত করে।