নবী প্রেমের কাহিনী

26

ইসলামিক নিউজ ডেস্ক রিপোর্টঃ
রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, তোমাদের কেউ ততক্ষণ পর্যন্ত মুমিন হতে পারবে না, যতক্ষণ না আমি তার নিকট তার পিতা-মাতা, সন্তান-সন্ততি ও সমস্ত মানুষ থেকে প্রিয় হব। সহীহ বুখারীঃহাদীস ১৫। আর সাহাবাগ্ণ(রাঃ) নবীকে সেই ভাবেই ভালবেসেছেন, যেভাবে ভালবাসলে আল্লাহ খুশি হন। কতশত ইতিহাস রয়েছে এই ভালবাসার, বলে বা লিখে শেষ করা সম্ভব না।

যায়েদ ইবনু সাবিত রাযিয়াল্লাহু আনহু বলেন,
❝উহুদ যুদ্ধের দিন রাসূলুল্লাহ (ﷺ) আমাকে সাদ ইবনু রবীআর খোঁজে পাঠান। তিনি (ﷺ) আমাকে বলে দেন, ❝যদি তুমি তাকে জীবিত অবস্থায় পাও, তাহলে আমার পক্ষ থেকে সালাম দিয়ো এবং বলো—আল্লাহর রাসূল জানতে চেয়েছেন, তুমি কেমন আছ?❞

এরপর আমি শহীদদের মাঝে তাকে খুঁজতে থাকি। একসময় পেয়েও যাই। তিনি তখন মুমূর্ষ অবস্থায় অন্তিম মুহূর্ত পার করছিলেন। তার গায়ে ৭০টিরও বেশি আঘাত ছিল। আমি তাকে নবীজির (ﷺ) বলা সবকথা খুলে বললাম। উত্তরে তিনি বললেন, ❝আল্লাহর রাসূলের ওপর শান্তি বর্ষিত হোক এবং তোমার ওপরও। তুমি গিয়ে তাকে বলবে,
ইয়া রাসূলাল্লাহ, আমি জান্নাতের সুঘ্রাণ পাচ্ছি!
আর আমার স্বজাতি আনসার ভাইদের বলবে,
তোমাদের দেহে এক ফোঁটা রক্ত থাকতেও যদি রাসূলুল্লাহ (ﷺ)-র গায়ে কোনো আঘাত লাগে, তবে কাল কিয়ামতের ময়দানে আল্লাহর সম্মুখে তোমাদের জবাবদিহি করতে হবে।❞

যায়েদ ইবনু সাবিত বলেন, ❝এ কথা বলে তিনি শেষ-নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। রাযিয়াল্লাহু আনহু।❞❞
(সিয়ারু আলামিন নুবালা : ১/৩১৯)