ঈদুল-ফিতরেই মুক্তি পাচ্ছে ‘মিশন এক্সট্রিম’

২০ই ডিসেম্বর, ২০২০ || ০২:১৯:১৪
12
Print Friendly, PDF & Email

কালচারাল ডেস্কঃ
ঘোষিত হলো কপ ক্রিয়েশন প্রযোজিত বহুল আলোচিত পুলিশ অ্যাকশন সাসপেন্স থ্রিলার সিনেমা ‘মিশন এক্সট্রিম’ মুক্তির দিনক্ষণ। সে সঙ্গে অবমুক্ত করা হলো সিনেমাটির দ্বিতীয় পোস্টার।

আগামী ঈদুল-ফিতর (২০২১)-এ মুক্তি পেতে যাচ্ছে সিনেমাটির প্রথম খণ্ড। চলতি বছর ঈদ-উল-ফিতরে মুক্তির কথা থাকলেও বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারি শুরু হওয়ায় পিছিয়ে যেতে বাধ্য হয় প্রযোজনা সংস্থা। তবে, ইদানিং দেশ-বিদেশে বন্ধ থাকা প্রেক্ষাগৃহগুলো আবার খুলতে শুরু করায় এবং দর্শকরাও হলমুখী হওয়ায় মুক্তির তারিখ পুনরায় ঘোষণা করা হলো।

উল্লেখ্য যে, বৃহৎ পটভূমির ওপর নির্মিত বিগ বাজেটের ‘মিশন এক্সট্রিম’ সিনেমাটি দুই খণ্ডের সিক্যুয়েল। তবে যথাযথ নির্মাণ কৌশল অবলম্বন করায় দর্শকরা প্রতিটি খণ্ডে একটি পূর্ণাঙ্গ সিনেমার আমেজ পাবেন। কারণ সিনেমা দু’টির প্রতি খণ্ডেই রয়েছে একটি চমৎকার সূচনা এবং তৃপ্তিদায়ক পরিসমাপ্তি। প্রথম খণ্ডের মিশন যেখানে শেষ সেখান থেকেই শুরু হয় দ্বিতীয় খণ্ডের এক্সট্রিম মিশন। বলা হচ্ছে, অ্যাকশন, থ্রিল, সাসপেন্স আর দেশপ্রেমের এক অনবদ্য গল্পগাঁথার নাম ‘মিশন এক্সট্রিম’। বাংলাদেশের ইতিহাসে সিনেমা নির্মাণের এরকম উদ্যোগ এবারই প্রথম।  

এদেশে দীর্ঘদিন যাবৎ ঈদুল ফিতরে বৃহৎ পরিসরে নির্মিত সিনেমাগুলো মুক্তি পেয়ে থাকে। এ প্রসঙ্গে ‘মিশন এক্সট্রিম’ সিনেমার অন্যতম পরিচালক, প্রযোজক ও লেখক সানী সানোয়ার বলেন, ঈদের সিনেমা বলতে আমরা বুঝি বছরের সবথেকে বড় সিনেমাটি, যার মধ্যে থাকবে প্রতিটি দর্শকের আকাঙ্ক্ষা পূরণের নিশ্চয়তা। প্রতিবেশী দেশেও বিগ বাজেটের সিনেমাগুলো তাদের বড় বড় উৎসবে মুক্তি পায়। সে হিসেবে ‘মিশন এক্সট্রিম’ এদেশে ঈদুল ফিতরের মতো বড় উৎসবে মুক্তি পাওয়ার মত একটি সিনেমা।

সিনেমাটির কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন নায়ক আরিফিন শুভ। তিনি বলেন, অনেকটা সময় পারি দিয়ে আমরা আবার হলমুখী হচ্ছি। এটি চলচ্চিত্রের দর্শক, কলাকুশলী এবং নির্মাতাসহ সকলের জন্য অত্যন্ত আকাঙ্ক্ষিত একটি ক্ষণ। আমার ধারণা, ‘মিশন এক্সট্রিম’ ঈদে মুক্তির মাধ্যমে এই হলমুখী স্রোতকে আরো বেগবান করবে যা পুরো চলচ্চিত্র শিল্পের জন্য একটি আশীর্বাদ।

সিনেমাটির অন্যতম প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ-২০১৮ জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী। তিনি বলেন, ক্যারিয়ারের শুরুতেই এতবড় একটি প্রজেক্টে কাজ করতে পেরে আমি সত্যি খুব আনন্দিত। আমার বিশ্বাস এই সিনেমার গল্প এবং নির্মাণের আধুনিক মান ঈদের উৎসবমুখর পরিবেশে দর্শক মনে নতুন মাত্রা যোগ করবে।  

তাসকিন রহমান বলেন, দর্শকরা সব সময় আমাকে যেভাবে দেখতে চান এবং আমি নিজেও আমাকে যেভাবে দেখতে চাই, ‘মিশন এক্সটিম’ সিনেমায় আমি নিজেকে সেভাবেই খুঁজে পেয়েছি। অত্যন্ত নিঁখুতভাবে গড়ে তোলা একটি চমৎকার চরিত্রকে আমি এই সিনেমায় ধারণ করেছি। এবার ঈদে সিনেমা হলে আমার নতুনরূপ নিয়ে সবার সামনে হাজির হব।

সিনেমাটির অপর পরিচালক ফয়সাল আহমেদ বলেন, সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে এবার ঈদে ‘মিশন এক্সট্রিম’ মুক্তি পাবার কিছুদিন পর ‘মিশন এক্সট্রিম-২’ মুক্তি দেয়া হবে।

‘ঢাকা অ্যাটাক’ টিমের পরবর্তী প্রজেক্ট হিসেবে মিশন এক্সট্রিম-এর ঘোষণার পর থেকেই চারিদিকে বেশ সাড় পড়ে। সানী সানোয়ারের কাহিনী, চিত্রনাট্য ও সংলাপের ওপর ভিত্তি করে নির্মিত সিনেমাটির শুটিং শুরু হয় ২০১৯ সালের মার্চ মাসে। ঢাকা, গাজীপুর ও দুবাই শহরের নানা লোকেশনে তিন ধাপে সিনেমাটির দুই খণ্ডের শুটিং সম্পন্ন হয়। মাইম মাল্টিমিডিয়া এবং ঢাকা ডিটেকটিভ ক্লাব সহযোগী প্রযোজক হিসেবে যুক্ত থেকে সিনেমার দু’টি খণ্ড নির্মাণ করেছে।

সিনেমাটির প্রথম পর্বে অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন- সাদিয়া নাবিলা, সুমিত সেনগুপ্ত, শতাব্দী ওয়াদুদ, রাইসুল ইসলাম আসাদ, ফজলুর রহমান বাবু, শহীদুজ্জামান সেলিম, ইরেশ জাকের, সুদীপ বিশ্বাস, মনোজ প্রামাণিক, মাজনুন মিজান, খালেদুর রহমান রুমী, মোহাম্মদ হায়দার আলী, রাশেদ মামুন অপু, ইমরান সওদাগর, আরেফ সৈয়দ, দীপু ইমাম, সুষমা সরকার, লায়লা ইমাম, এহসানুর রহমান, শামস সুমন, ইকরাম, নাজমুস সাকিব প্রমুখ।  

শিগগিরই সিনেমাটির গান প্রকাশের মাধ্যমে ব্যাপকভিত্তিক প্রচারণামূলক কার্যক্রম শুরু করা হবে বলে জানা যায়।